ওজন কমাতে মিষ্টি আলু উপকারিতা

ওজন কমাতে মিষ্টি আলুর উপকারিতা?

ওজন কমাতে মিষ্টি আলু

ওজন কমাতে মিষ্টি আলু , ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয়ে আলু খেতে পারছেন না? এবার থেকে তবে মিষ্টি আলু খাওয়া শুরু করুন।

কারণ এটি আপনার ওজন বাড়াতে নয়, কমাতে সাহায্য করবে। আলুর স্বাদ তো পাবেনই, পাশাপাশি ওজন নিয়ে বাড়তি দুশ্চিন্তাও থাকবে না।

আমাদের শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় খনিজ ও ফাইটোনিউট্রিয়েন্টের পাশাপাশি এতে আছে ভিটামিন এ।

সাধারণত ডায়াবেটিক ও স্থুলতার রোগীদের আলু খেতে নিষেধ করা হয় কারণ এতে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স বেশি মাত্রায় থাকে। তবে মিষ্টি আলুতে এটি একেবারেই কম থাকে।

মিষ্টি আলু খেলে ওজন কমে, কারণ:-

আলুতে রয়েছে প্রচুর ফাইবার যা অতিরিক্ত খাওয়ার ইচ্ছাকে নিয়ন্ত্রণে রাখে। ফলে ওজন বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই থাকে না।

মিষ্টি আলু হজমশক্তি অর্থাৎ মেটাবলিজম বাড়াতে সাহায্য করে, ফলে খাওয়া ভালোভাবে হজম হয়। গ্যাসের সমস্যা বা পেটের সমস্যা হয় না।

শরীরে জমে থাকা অতিরিক্ত পানি শোষণ করতে সক্ষম মিষ্টি আলু। অনেকের ওজন বেশি থাকে এই অতিরিক্ত পানির কারণেই।

শরীরে শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে মিষ্টি আলু। ফলে এক্সাসাইজ করার ইচ্ছা ও ক্ষমতা বজায় থাকে। এটি খেলে ক্লান্তিভাব আসে না সারাদিনে।

শরীরের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে মিষ্টি আলু। কারণ এতে ক্যাটালেস ধরনের অ্যান্টিঅক্সাইডের পরিমাণ বেশি। এছাড়াও রয়েছে জিঙ্ক সুপারঅক্সাইড, স্পোরামিন।

ওজন কমাতে মিষ্টি আলু যেভাবে খাবেন:

অনেকেই মিষ্টি আলু খেতে খুব একটা পছন্দ করেন না। তাই বলে এটি মুখরোচক করতে গিয়ে ভেজে খাবেন না যেন!

কারণ তাতে ভালো ফল তো পাবেনই না উল্টো ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। তাই ওজন কমাতে চাইলে এইসব উপায়ে মিষ্টি আলু খান

১। মিষ্টি আলু সেদ্ধ করে তা খান, ভেজে নয়।
২। মাইক্রোওয়েভে বেক করে খেতে পারেন।
৩। সালাদের সাথে একটুকরো কাঁচা আলু চাইলে মিশিয়ে খেতে পারেন।
৪। মিষ্টি আলু খেলে যেহেতু এনার্জি বাড়ে, তাই এক্সাসাইজ করার আগে যখন কিছু খান তাতে এটি যোগ করে নিন। বেশিক্ষণ ধরে এক্সাসাইজ করার ক্ষমতা পাবেন ফলে দ্রুত কমবে ওজন।
৫। সপ্তাহে রোজ না হলে ৪ থেকে ৫ দিন একটি থেকে দুটি মিষ্টি আলু খাওয়ার অভ্যাস করুন। সুস্থ থাকার সাথে সাথে ওজনও কমাতে পারবেন সহজে

ডায়াবেটিস হলে মিষ্টি আলু খাওয়া যাবে?

আপনি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে মিষ্টি আলু খাওয়ার আগে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

কারণ কার কার কি ধরনের, কত পরিমানে সুগার রয়েছে তা নির্ণয় না করে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া ঠিক নয়।

যারা সুগার হওয়ার ভয়ে ও ওজন বাড়ার ভয়ে আলু খাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন তারা বরং অবশ্যই এটি খাওয়া শুরু করুন।

কারণ এতে সুগার হওয়ার কোনো ভয় নেই ও এটি খেলে ওজন কমতে শুরু করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *