বেশি লবণ খাবেন না?

বেশি লবণ খাবেন না

বেশি লবণ খাবেন না , বেশি লবণ খাওয়া শরীরের জন্য ক্ষতিকর
প্রতিদিন শরীরে কিছু পরিমাণ লবণ বা সোডিয়াম প্রয়োজন।

সোডিয়াম শরীরের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে তরলের ভারসাম্য নিয়ন্ত্রণ করে।

প্রতিদিন শরীরে পাঁচ গ্রাম লবণ প্রয়োজন। এক চা চামচে ছয় গ্রাম লবণ থাকে। তবে অতিরিক্ত সোডিয়াম গ্রহণ শরীরের ক্ষতি করে।

আপনি কি বেশি লবণ খাচ্ছেন? আর শরীরে কি লবণ বা সোডিয়াম ক্লোরাইডের মাত্রা অনেক বেশি হয়ে যাচ্ছে?

কিন্তু জানেন কি শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার ফলে কিডনির ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা কয়েকগুণ বেড়ে যায়।

কিন্তু বুঝবেন কীভাবে যে আপনার শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা বেড়ে গেছে

১) কিডনির ক্ষতি করে :

শরীরে তরলের ভারসাম্য বজায় রাখতে অল্প পরিমাণ সোডিয়াম প্রয়োজন। তবে বেশি সোডিয়াম গ্রহণ কিডনিকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। অতিরিক্ত লবণ কিডনির কার্যক্রমকে প্রভাবিত করে।

২) রক্তচাপ বাড়ায় :

উচ্চ রক্তচাপ হৃদরোগের প্রধান কারণ। আর উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার বড় কারণ হলো বেশি মাত্রায় লবণ খাওয়া।

৩) পাকস্থলীর ক্যানসার :

বেশি লবণ ও লবণযুক্ত খাবার খাওয়া পাকস্থলীর ক্যানসার তৈরি করতে পারে। গবেষণায় বলা হয়, কম পরিমাণ লবণ খাওয়া পাকস্থলীর ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়।

৪) হাড় দুর্বল করে :

বেশি পরিমাণ লবণ খাওয়া হাড়ের জন্যও ক্ষতিকর। বেশি লবণ খেলে হাড় থেকে ক্যালসিয়াম কমে যায়। ক্যালসিয়াম হাড় মজবুত ও শক্ত করে। হাড় ক্ষয় হলে অস্টিওপরোসিসের ঝুঁকি বাড়ে।

৫) শরীর ফুলে যাওয়া :

বেশি মাত্রায় সোডিয়াম বা লবণ খাওয়া ইলেকট্রোলাইটের ভারসাম্য নষ্ট করে। এটি শরীর ফোলার সমস্যা তৈরি করে।

শরীর ফুলে যাওয়ার সমস্যা দৈনন্দিন কার্যক্রমকে ব্যাহত করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *